পৃষ্ঠাসমূহ

শনিবার, ৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৩

অমিয় ঘোষ এখন আর ‘খুনি’ নয়, তাকে আর ‘খুনি’ বলা যাবে না।

Sorry Felani I am failed : My poetry also injustices` by them!

...........................................................................................................

 আদালত তাকে সে সনদই দিয়ে দিয়েছে!

ফেলানীকে গুলি করে মেরে ফেলেছিল বিএসএফ-এর যে জোয়ান, আদালত তাকে নিদোর্ষ বলে রায় দিয়েছে। ইতোমধ্যে তাকে কারগার থেকে ছেড়েও দেওয়া হয়েছে। 
বিএসএফ ১৮১ ব্যাটালিয়নের চৌধুরীহাট ক্যাম্পের জওয়ান অমিয় ঘোষ এখন আর ‘খুনি’ নয়, 
তাকে আর ‘খুনি’ বলা যাবে না।
ছবিটা ছিল বলেই তা নিয়ে আমরা সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলো গরম করে ফেলতে পেরেছি প্রতিক্রিয়ায়। কাব্য-গানের সুরও তুলতে পেরেছি। কিন্তু সেই ছবি না থাকলে? তাহলে ফেলানী কোনোভাবেই ‘ফেলানী’ হয়ে উঠতে পারত না, সেটা শতভাগ নিশ্চিত।
ref:http://opinion.bdnews24.com/bangla/2013/09/07/
  ...........................................................................................................

বাংলাটা ভাগের মতো ফেলানীর বুকটা ভাগ করে
সকালে শিশিরে রক্ত ফোঁটা নিরাপত্তার যন্ত্র হয়ে
মানব-কলঙ্ক নিয়ে পুবের আকাশে নতুন সূর্য ওঠে।

ফেলানীর লাশ ঝুলে থাকে ভারত সীমান্তে কাটাতারে!

বাঁচাও! বাঁচাও! সম্ভ্রান্ত জাতির কাটা হাত থেকে
নিখুঁত নিশানা নিয়ে ওরা মানুষ ধরার ফাঁদ পেতে থাকে
ওৎপাতা মানবাধিকার! বুকপাতা ফেলানীর শরীরে বিঁধে

ভারতের নিরাপত্তা নিশ্চিত নিশ্চয়! বাহবা পেতেই পারে!!!

ফেলানীর লাশ নিঃশ্বাস ছাড়ে গণতন্ত্রের ঘাড়ে!
অবশেষে ভোর বোবার মতন খুনের সেই দৃশ্য চাটে!!

বাংলাদেশ সময় ২১২০, ফেব্রুয়ারি ৬, ২০১১
একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Google+ Badge

send or tell a frind

voice of the protestant


take a look!

Translate

Sayed Taufiq Ullah